অনুপম উত্থান



অনুপম উত্থান
.
বিসমিল্লাহির রহমানীর রহীম।
.
সাজানো গোছানো ফুটপাথ।
একপাশে কৃষ্ণচূড়ার সারি। আরেকপাশে রেলিং দিয়ে ঘেরা নানা প্রজাতির ফুলের গাছ। ধরুন সকালে এই পথে আপনি হাঁটতে বেরিয়েছেন। কিছুদূর যাবার পরে আবিষ্কার করলেন কে যেন ফুটপাথের একপাশে, কৃষ্ণচূড়ার গাছের নীচে মলত্যাগ করে রেখেছে। এক্ষেত্রে আপনি দুইটি কাজ করতে পারেন। বিষ্ঠার দিকে নজর না দিয়ে নাক বন্ধ করে মলমূত্র ত্যাগকারীর মুন্ডুপাত করতে করতে আপন পথে চলে যেতে পারেন। জনসেবা করার অভ্যেস থাকলে হয়তো কোণোকিছু দিয়ে সেটি আড়াল করে রাখবেন । যেন দুর্গন্ধ না ছড়ায় ।
.
এবার ধরুন, আপনি আরেকদিন ফুটপাতে হাঁটতে বের হলেন। এবারে দেখলনে পুরো ফুটপাত জুড়েই কে যেন ‘হাগু’ করে রেখেছে। বিষ্ঠা না সরালে কোনোমতেই ফুটপাত দিয়ে হাঁটা সম্ভব না। আপনি এক্ষেত্রেও দুইটি কাজ করতে পারেন। ফুটপাত থেকে রাজপথে নেমে আপন পথে চলে যেতে পারেন। অথবা সিটি কর্পোরেশনের কাউকে ডেকে, আশেপাশের মানুষজনের সাহায্য নিয়ে ফুটপাত পরিষ্কার করতে পারেন। পথচারীদের জন্য আবার ফুটপাত ব্যবহার উপযোগী করতে পারেন।
.
আপনি আপনার নৈতিক/নাগরিক দায়িত্ব এড়িয়ে রাজপথে নেমে আপন পথে চলে গেলেন, অন্য কেউ এসে ফুটপাত পরিষ্কার করল বা কাউকে দিয়ে আপনি নিজেই ফুটপাত পরিষ্কার করে নিলেন সবক্ষেত্রেই একটি বিষয় কমন – ফুটপাত পরিষ্কার করার জন্য বিষ্ঠা ঘাঁটাঘাঁটি করা লাগছে, আর এরফলে কিছুটা দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। আপনি যদি এই ক্ষণিকের দুর্গন্ধের ভয়ে বিষ্ঠা ঘাঁটাঘাঁটি করতে না দেন তাহলে এতো সুন্দর একটি ফুটপাত পথচারীরা ব্যবহার করতে পারবেনা। রাজপথে নামতে হবে । যে কোনো মুহূর্তেই ঘটে যাবে মারাত্মক দুর্ঘটনা। তাছাড়া রাস্তাভর্তি বিষ্ঠা এভাবে ফেলে রাখলে দুর্গন্ধ ছড়াবেই।

.
.
ইনবক্সে ঘনঘন কিছু মেসেজ আসে। এগুলো পড়ার পর মনে হয় না পড়লেই ভালো হতো। বেশ কয়েকবছর ধরে আল্লাহ্‌ (সুবঃ) এই টপিকের ওপর কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছেন। মানব চরিত্রের অনেক কুৎসিত আর বিশ্রী দিক জানতে চেয়েছে। স্বাভাবিক অবস্থাতে যেগুলো একজন মানুষের পক্ষে জানা সম্ভব না। সুন্দর, জীবনযাপনের জন্য এগুলো জানা উচিতও নয়।। গা ঘিন ঘিন করা, অরুচিকর বীভৎস সব ব্যাপার- কৈশোর বছর পেরোনোর আগেই আত্মীয়দের মধ্যে ১২ জন দ্বারা রেইপড হওয়া, নিজের ভাই খালি বাসা পেয়ে নিজের বোনকে পর্ন দেখিয়ে ধর্ষণ করতে চাওয়া, চাচা, কাজিন,পাড়াতো ভাই, নিকটাত্মীয়দের সাথে সমকামিতা, যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়া (ছেলে মেয়ে দুইক্ষেত্রেই), বিবাহিত অসংখ্য লোকের মারাত্মক পর্ন আসক্তি, পর্নমুভির অনুকরণে স্ত্রীর সঙ্গে পশুর মতো আচরণ করা, পঞ্চাশ ছুঁই ছুঁই বাবার ছেলে মেয়ের সামনেই আইটেম সং দেখতে দেখতে হস্তমৈথুন করা, কিন্ডারগার্ডেন পড়ুয়া শিশুদের পর্ন আর হস্তমৈথুনে আসক্ত হয়ে যাওয়া, কিশোরী, তরুণীদের হু হু করে বেড়ে যাওয়া পর্ন আর হস্তমৈথুন আসক্তি…।
মাঝে মাঝেই আমাদের কাজ থেকে ব্রেক নিতে হয়। মানসিক স্থিরতার জন্য। আপনাদের তো শুধু ট্রেইলার দিলাম। আসল ব্যাপার আরো অনেকগুন বিশ্রী। হজম করতে কষ্ট হয়।
.
সভ্যতার একজন হয়ে আপনি যদি চুপ করে থাকেন আপনার দায়িত্ব এড়িয়ে যান তাহলে বড় ভুল করবেন। তারচেয়েও বেশি ভুল করবেন যদি ভাবেন এগুলো নিয়ে কথা বললে, জনসচেতনতা বাড়াতে চাইলে এই বিষয়গুলো আরো ছড়িয়ে পড়বে, যারা জানেনা তারাও জেনে যাবে। দেখুন, এই সভ্যতার আগোগাড়া মলমূত্র লেপ্টে গিয়েছে। আপনি এগুলো নিয়ে কথা বললেও দুর্গন্ধ ছড়াবে, না বললেও ছড়াবে। তবে কথা বললে মলমূত্র পরিষ্কার করার কাজ অনেকটাই এগিয়ে যাবে। ব্যর্থ এই সভ্যতার মূলোৎপাটন করার ক্ষেত্র তৈরি হবে।
.
মলমূত্র পরিষ্কার করতেই হবে, মলমুত্র আর আবর্জনার ভারে এই সভ্যতার মুমূর্ষু অবস্থা। আর দুই একটা শ্বাস বাকী। আবর্জনা পরিষ্কার না করলে এই সভ্যতা আর এগোতে পারবেনা। আপনি যদি মলমূত্র পরিষ্কার না করেন, যারা করে বা করতে চাই তাদেরকে সাহায্য না করেন, যদি তাদের বিরোধিতা না করেন তাহলে কোনো কিছুই থেমে থাকবেনা। হয়তো কিছুটা বিলম্ব হবে, কিছুটা দুর্গমও হয়ে উঠবে। তবে একসময় এই হাগুমাখানো সভ্যতা পরিষ্কার হবেই হবে ইনশা আল্লাহ্‌, আর আপনার নাম উঠবে রাজাকার, কাপুরুষ আর মুনাফিকের খাতায়।
.
বাগেরহাটের সেই ভাইয়েরা।
নিজের টাকায় লিফলেট বানিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে বিতরণ করছেন। ভাইদের ইনবক্স- ‘আমাদের পার্শ্ববর্তী গ্রাম চাঁপাতলার ইমামকে লিফলেট ও ১টি বই দিয়েছি৷ উনি সম্ভবত পরপর দুই/তিন জুমায় খুতবাহ দিয়েছেন এ বিষয়ে৷ আমাদের স্কুলের হুজুর স্যার আমার একজন প্রিয় শিক্ষক, উনাকে একটা বই দিয়েছি৷ বই পেয়েই উনি বললেন আগে উনার নিজের ছেলেকে পড়তে দেবেন ৷ পার্শ্ববর্তী গ্রাম রহিমাবাদের ইমামকে শুধু লিফলেট কয়েক কপি দিয়েছি উনি বিলি করেছেন৷ ইমাম সাহেব পরে আমাকে জানিয়েছেন কয়েকজন যুবক বইটি পাওয়ার জন্য পাগল করে দিচ্ছে৷ আমার কাছে মাত্র একটি ছিল সেটাও দিয়ে দিয়েছি…’
.
ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানো আরেক ভাই হলেন- চিটাগাঙ্গের ফায়সাল ভাই (https://tinyurl.com/y8l3ds7b )। ঘন্টার পর ঘন্টা প্রেসে লিফলেটের কাজে বসে থাকছেন। ফান্ড কালেক্ট করছেন। বিশাল এক প্ল্যান নিয়ে মাঠে নেমেছেন।
.
আল্লাহ্‌ (সুবঃ) এই সকল তরুণপ্রাণদের মাধ্যমেই পর্নোগ্রাফির নীল অন্ধকারে ছেয়ে যাওয়া মানবমন গুলোতে দীপ জ্বালিয়ে দিবেন। সকল প্রকার কলুষতা আর কালিমার স্পর্শবিহীন এক মৌলিক মানব সভ্যতা নির্মাণের জন্য ক্ষেত্র তৈরি করে দিবেন এই আশা আমরা করতেই পারি।
কী বলেন ?

লিফলেট বিতরণ সংক্রান্ত কিছু কথা-
https://tinyurl.com/y7rooy26
https://tinyurl.com/y773f88b

source

Leave a Reply