দ্বীনে ফেরার গল্পঃ রবার্ট



ইসলাম নিয়ে কথা বলা নিয়ে আমাদের মধ্যে একটা হীনমন্যতা কাজ করে। কতোবার এমন হয়েছে যে কেউ একজন ইসলাম নিয়ে কথা বলা শুরু করেছে আর আমরা ইতস্তত বোধ করছি? উশখুশ করছি? অনেকে তো বলেই বসে, এতো ধর্মের কথা বলার দরকার নাই, আসেন অন্য কিছু নিয়ে কথা বলি!
.
আমাদের আড্ডাগুলো জুড়ে থাকে বিপিএল, আইপিএল, ইপিএল, লা লিগা, বলিউড, হলিউড। কে কার ক্রাশ, কার সাথে কার রিলেশন, কার ব্রেকাপ হল এসব নিয়ে আমরা ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলি, চ্যাট করি। কোন ব্যান্ড সবচেয়ে হেভি, কারা সবচেয়ে টেকনিক্যাল বাজায়, কারা সবচেয়ে উড়াধুরা – এটা খুব আগ্রহ নিয়ে আমরা কথা বলি। অনেকে আলাপ করে ক্লাসের কিংবা পাড়ার সুন্দরী মেয়ে কিংবা ম্যাডামকে নিয়ে। শরীরের মাপজোক নিয়ে।
.
এর মাঝে ইসলাম নিয়ে কথা বলতে নিজেদেরও অদ্ভূত লাগে, কারো কথা শুনতে গেলেও অস্বস্তি হয়। ধীরে ধীরে আমরা ইসলাম থেকে দূরে সরে যেতে থাকি। সারাদিন যেগুলো নিয়ে সময় কাটাই, আড্ডায় যা কিছু নিয়ে কথা হয় মাথাতে সেগুলোই ঘুরপাক খেতে থাকে। জীবনটা এসবের মধ্যে আটকে যায়। একটা চক্রের মধ্যে আবদ্ধ হয়ে যাই আমরা। এ চক্র ভাঙ্গা সহজ না। দুঃসাধ্য। নিজের অভ্যস্ত জীবন, চিন্তা জগত থেকে টেনেহিচড়ে নিজেকে বের করে আনতে হয়। বের করে আনলেই হয় না, আবারো চক্রে ফিরে যাওয়া থেকে নিজেকে আটকাতে হয়।
.
মুসলিম পরিবারে জন্ম নিয়ে, অল্পস্বল্প ইসলাম জানার পরও যে কাজটা আমাদের জন্য কঠিন, একজন অমুসলিমের জন্য সেটা কেমন? নিশ্চয় আরো অনেক বেশি কঠিন। তবে অসম্ভব না। আর এটাই মূল পয়েন্ট যেটা নিয়ে আমাদের ফোকাস করা উচিৎ। চারপাশের জাহিলিয়্যাহ ছেড়ে আসার কাজটা কঠিন হলেও অসম্ভব না। দরকার আন্তরিক ইচ্ছা, এবং চেষ্টা। যারা জাহিলিয়্যাহ ছেড়ে আসতে চাচ্ছেন, চক্র ভাঙ্গতে চাচ্ছেন, কিন্তু নান কারণে কাজটা শেষ করতে পারছেন না, আশা করি রবার্টের গল্প তাদের জন্য উপকারী হবে।

#KnowYourDeen

source

Leave a Reply