মুসলিম সাম্রাজ্যের পতন…



মুসলিম বিশ্বের পতনে পৃথিবী কি হারাল?
.
গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। কিন্তু প্রশ্নটা জড়িত ফলাফলের সাথে। একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়ার পরিণতির সাথে। গোঁড়া থেকে সমস্যাকে না বুঝতে পারলে, উৎস চিহ্নিত করতে না পারলে, সাধারনত ঐ সমস্যার সমাধান করা যায় না। তাই আসুন আমরা কয়েক ধাপ পিছিয়ে যাই। ফলাফলের আগে কার্যকারন সংক্রান্ত প্রশ্নটা করা যাক।
.
মুসলিম সাম্রাজ্যের পতন কিভাবে ঘটলো?
.
পতনের কারনটা কি অভ্যন্তরীণ ছিল? নাকি বাহ্যিক কোন কারন ছিল? বাইরে থেকে কোন শত্রু এসে কি এই সাম্রাজ্যকে ধ্বংস করেছিল? নাকি মুসলিমরা নিজেরাই নিজেদের ধ্বংস ডেকে এনেছিল? দোষ কার? বিক্রিয়ক, ক্যাটালিস্ট কি ছিল?
.
অধিকাংশ মানুষ সম্ভবত বলবেন – কারনটা ছিল অভ্যন্তরীণ। দোষ ছিল মুসলিমদের। এবং যারা এমনটা বলবেন তাদের উত্তর সঠিক হবে…তবে আংশিক ভাবে।
.
যদিও মুসলিমরাই কার্যত নিজেদের পতনের জন্য দায়ী ছিল, কিন্তু মুসলিমরা যে কাজগুলোর মাধ্যমে নিজেদের সাম্রাজ্যের ধ্বংস ত্বরান্বিত করেছিল সেগুলোর ভিত্তি হিসেবে কাজ করছিল এমন কিছু বিষাক্ত দর্শন ও ধারণা যা বাইরে থেকে মুসলিমদের ভেতর প্রবেশ করেছিল। সুতরাং, হ্যা কারনটা অভ্যন্তরীন বলা যায়, তবে এর পেছনে কাফিরদের কাছ থেকে মুসলিমদের চিন্তার জগতে প্রবেশ করা বিষাক্ত দর্শন ও ধারনার ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর যদি মুসলিম সাম্রাজ্যের পতনের পেছনে এই দর্শন ও ধারণাগুলোর ভূমিকাকে এড়িয়ে গিয়ে কোন বিশ্লেষণে যাওয়া হয়, তবে সেটা শেষপর্যন্ত আপনাকে একটা ভুল ফলাফলে পৌছে দেবে।
.
মুসলিমদের অধঃপতনের পেছনে এই বাহ্যিক বিক্রিয়কগুলোর ভূমিকা যদি উপেক্ষা করা হয় তাহলে মুসলিমদের বর্তমানকে পরিবর্তন করা আদৌ সম্ভব না। কারন ঠিক যেই দর্শন ও ধারণাগুলো প্রায় এক শতাব্দী আগে মুসলিম সাম্রাজ্যের পতনের কারন হয়েছিল, সেই একই বিষে আজো নিমজ্জিত হয়ে আছে মুসলিমদের চিন্তার জগত।
.
আচ্ছা বলুন তো কোন দর্শন, কোন ধারণাগুলো মুসলিমদের অধঃপতনের জন্য দায়ী? কোন দর্শন, কোন ধারণাগুলো আজো আমাদের চিন্তাকে ব্যাধিগ্রস্থ করে রাখছে? আমাদের প্রকৃত ভাবে ইসলাম পালন করা থেকে দূরে সরিয়ে রাখছে?
.
হিন্ট দেই…নানা রঙ্গে রাঙ্গানো, নানা সুরে সাজানো, মানচিত্রে টানা আঁকিবুঁকি…
.
#KnowYourDeen
#KnowYourHistory

source

Leave a Reply